এমডি’র কারাবরণে প্রভাব পড়বে না ওয়াটা কেমিক্যালের কার্যক্রম

সময়: Friday, June 24th, 2022 3:14:54 pm

নিউজবিজ প্রতিবেদক : প্রতারণার শিকার হয়েছে যমুনা কনস্ট্রাকশনের মালিক ও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওয়াটা কেমিক্যালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. নজরুল ইসলাম। অর্থ আত্নসাতের মিথ্যা মামলায় তিনি এখন কারাবরণ করছেন। এ পরিস্থিতিতে ওয়াটা কেমিক্যালের কার্যক্রম পরিচালনায় প্রভাব পড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা শঙ্কা প্রকাশ করছেন।

তবে কোম্পানিটির দাবি, করপোরেট গভর্ন্যান্স মেনে পরিচালিত হওয় ওয়াটা কেমিক্যালসের ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে কোনো প্রভাব পড়বে না। আর খুব শিগগিরই কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম আইনি জটিলতা থেকে মুক্ত পাবেন।

কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানায়, বিভিন্ন ভুয়া কোম্পানি চালু করে বড় বড় প্রজেক্ট দেখিয়ে শেয়ার বিক্রি করে জনগণে অর্থ সংগ্রহ করেছেন হাইটেক সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক জিয়াউদ্দিন জামান। সেসুবাদে ওয়াটা কেমিক্যালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম তার মালিকানাধীন কোম্পানি যমুনা কনস্ট্রাকশন থেকে বিনিয়োগ করে হাইটেক সিরামিকসে। পরবর্তীতে তিনি যখন জানতে পারেন, হাইটেক সিরামিকস প্রকৃতপক্ষে একট নাম সর্বস্ব ভুয়া কোম্পানি। তখন পাওনা টাকা ফেরত নেওয়ার জন্য জিয়াউদ্দিন জামানের সঙ্গে তিনি যোগাযোগ করেন। কিন্তু টাকা ফেরত না পেয়ে এক পর্যায়ে জিয়াউদ্দিন জামানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন নজরুল ইসলাম।

জিয়াউদ্দিন জামান পাওনা টাকা পরিশোধ না করে উল্টো নজরুল ইসলামকে ফাঁসানোর জন্য বিভিন্ন পথ অবলম্বন করেন। তিনি যমুনা কনস্ট্রাকশনের নামে ভুয়া প্যাড বানিয়ে নতুন প্রজেক্টের নামে অগ্রণী ব্যাংকের কাছ থেকে ঋণ নেন। পরে যমুনা কনস্ট্রাকশনের নামে অগ্রণী ব্যাংকের ইস্যু করা চেক পাওনা পরিশোধ হিসেবে মো. নজরুল ইসলামকে দেন জিয়াউদ্দিন জামান। এর ফলে নজরুল ইসলাম তার পাওনা টাকার আংশিক ১৪ কোটি ৩ লাখ টাকা ফেরত পান। কিন্তু পরবর্তীতে অগ্রণী ব্যাংক তাদের পাওনা দাবি করে নজরুল ইসলামের কাছে। এভাবে তাকে মিথ্যা অর্থ আত্মসাত মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়। এরই ধরাবাহিকতায় গত ২০ জুন জামিনের জন্য আদালতে হাজির হলে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নুর তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে ওয়টা কেমিক্যালের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) বলেন, ‘কোম্পোনিটি করপোরেট গভর্ন্যান্স মেনে চলে। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্দেশনায় তা উল্লেখ রয়েছে। আর সেভাবেই কোম্পানির কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এক্ষেত্রে কোম্পানিটির কাজে কোনো বাধা আসবে না।’

নিউজটি ১৩৩ বার পড়া হয়েছে ।
Tagged