বিএনপি এখন পতিত রাজনৈতিক দল: ওবায়দুল কাদের

সময়: Friday, July 15th, 2022 6:50:12 pm

নিউজবিজ প্রতিবেদক : জনগণ দ্বারা বার বার প্রত্যাখ্যাত হয়ে বিএনপি একটি পতিত রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, বিএনপির আহ্বানে জনগণ কখনই সাড়া দেয়নি। তারপরও বিএনপি নেতৃবৃন্দ দিবা-স্বপ্নের ঘোরে আচ্ছন্ন হয়ে আছে। তারা জনকল্যাণকর রাজনীতির পথ পরিহার করে চক্রান্তের মাধ্যমে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের পাঁয়তারা করে আসছে।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এসব কথা বলেন তিনি।

বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি কখনই জনগণকে ক্ষমতার উৎস মনে করে না। বরং তারা তাদের রাজনৈতিক হীন স্বার্থ চরিতার্থে জনগণকে বিভ্রান্ত করার মধ্য দিয়ে ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নে অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। বিএনপি নেতৃবৃন্দ মিথ্যা তথ্য দিয়ে শুধু বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রসমূহকেই বিভ্রান্ত করছে না, জনগণকেও উল্কানি দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, গত কয়েক দিন পূর্বে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমে বিবৃতি প্রদান করে যশোরের যুবদল নেতা হত্যাকাণ্ডের দায় আওয়ামী লীগের উপর চাপিয়ে দিয়েছিলেন। অথচ বাদী পক্ষের দায়েরকৃত এজাহার, প্রাথমিক তদন্তে উদঘাটিত তথ্য ও গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের মাধ্যমে দেশবাসী জানতে পেরেছে, এই হত্যাকাণ্ডে বিএনপিই জড়িত। বিএনপি সন্ত্রাসীরা এই হত্যাকাণ্ডটি সংঘটিত করেছে এবং এর কারণও তাদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব ও আধিপত্য বিস্তার। এভাবেই কোনো ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত বা বিচারকে ব্যাহত বা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য বিএনপি নেতারা মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বক্তব্য প্রদান করে থাকেন। যখন তাদের অপপ্রয়াস ব্যর্থ হয় তখনই তারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিচার ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার ধৃষ্টতা দেখায়।

তিনি বলেন, দেশবাসী ভুলে যায়নি, বিএনপির আমলে কীভাবে আইনের ভুয়া ডিগ্রিধারী নেতাকে সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি করে বিচার ব্যবস্থাকে দলীয়করণ করা হয়েছিল; নিজেদের দলীয় লোককে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান করার লক্ষ্যে বিচারপতিদের বয়সসীমা বাড়ানো হয়েছিল। অন্যদিকে তারেক রহমানের নেতৃত্বে হাওয়া ভবন খুলে বিচার বিভাগসহ রাষ্ট্রের সব শাসন কাঠামোকে নিয়ন্ত্রণ করা হতো।

নিউজটি ১৫৭ বার পড়া হয়েছে ।